স্টাফ রিপোর্টার, বান্দরবান: বান্দরবানে থানচি উপজেলার বাংলাদেশ জাতীয় বাদী দল বিএনপি সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান খামলাই ম্রো মোটা অংক টাকা নিয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহন না করে সরে দাড়ার অভিযোগ উঠেছে। এ কথার ভিত্তি করে উপজেলা বিএনপি নেতা কর্মীদের মধ্যে চলতে থাকে আলোচনা সমালোচনা। সোমবার (২২ এপ্রিল) বিকালে এ মিথ্যা গুজবের প্রতিবাদে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বিএনপি। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) থানচি উপজেলা শাখার সভাপতি খামলাই ম্রো স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তি বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকদের কাছে প্রেরণ করা হয়।

            উপজেলা বিএনপি সভাপতি খামলাই ম্রো স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, থানচি সদর ইউনিয়নে ১ নং ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দা মৃত: ডিংতে ম্রো ছেলে খামলাই ম্রো। সে থানচি উপজেলা বিএনপি সভাপতি। গত ১৯ ও ২০ এপ্রিল থানচি বাজারে খামলাই ম্রো নামে এক গুজব ছড়ানো হয়েছে। বান্দরবান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হতে মোটা অংকে টাকা নিয়ে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জন করেছেন। তার নামে যে মিথ্যা ও গুজব ছড়িয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিক্তিহীন মনে করেন। এ গুজব তার ব্যাক্তিত্ব ও ইমেজকে ক্ষুন্ন করার ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। বিএনপি সকল নেতা কর্মীদের এ গুজবে কান না দিতে অনুরোধ করেন।

            বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানা যায়, খামলাই ম্রো বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির একজন সক্রীয় কর্মী। বিগত ২০০৯ সাল হতে অদ্যাবধি থানচি উপজেলা বিএনপি সভাপতি দায়িত্ব পালন করছেন খামলাই ম্রো। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তকে মান্য করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জন করেছেন। তা ছাড়া ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহন থেকে নিজেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

            গত ২১ মার্চ উপজেলা পরিষদ ৬ষ্ঠ বারে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে তফসিল ঘোষণা করেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সারাদেশে প্রথম ধাপে ১৫২ টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৮, ২৩, ২৯ মে ও ৫ জুন ৪ টি ধাপে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী প্রথম ধাপে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমার শেষ সময় ১৫ এপ্রিল, বাছাই ১৭ এপ্রিল, প্রত্যাহারের শেষ সময় ২২ এপ্রিল। ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে ৮ মে। ইভিএমে ভোট হবে ২২ টি উপজেলায় এবং বাকিগুলোয় ব্যালট পেপারে নির্বাচন হবে। দলীয় প্রতীক উন্মুক্ত রেখে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হবে। গত ২৩ এপ্রিল বান্দরবানে থানচি, রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বিশেষ পরিস্থিতি কারনে সাময়িক সময়ে স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

খবরটি 392 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen