পার্বত্য চট্টগ্রাম ডেস্ক: সারা দেশে ৭ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হয় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। পার্বত্য চট্টগ্রামে রাঙ্গামাটি আসনে বিপুল ভোটে বিজয় অর্জন করে লাকী গোল্ড বর্ষীয়ান নেতা দীপংকর তালুকদার। বান্দরবান আসনে বিপুল ভোটে বিজয় অর্জন করে লাকী সেভেন বীব বাহাদুর। খাগড়াছড়ি আসনে বিজয় অর্জন করে হ্যাটট্রিক কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। পার্বত্য চট্টগ্রামে ব্যতিক্রম কয়েকটি বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপুর্ণ ও প্রতিদ্বন্দ্বীতা দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার ৯ টি কেন্দ্রে কোন ভোট পড়েনি।

            রাঙামাটি আসনে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে পঞ্চম বারের মতো বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন নৌকার প্রতীক আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী দীপংকর তালুকদার। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২,৭১,৩৭৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্ধী ছড়ি প্রতীক নিয়ে বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট প্রার্থী অমর কুমার দে পেয়েছেন ৪,৯৬৫ ভোট। সোনালী আশ প্রতীক নিয়ে তৃনমুল বিএনপির প্রার্থী মো: মিজানুর রহমান পেয়েছেন ২,৬৯৩ ভোট। রাঙামাটির মোট ২১৩ টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষনা করেন জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান। রাঙামাটি জেলায় মোট ভোটার ছিল ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৪৫৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২,৪৭,৪১৬  জন ও মহিলা ভোটার ২,২৭,০৩৬ জন। রাঙ্গামাটির ১০ টি উপজেলার ২১৩ টি কেন্দ্রের ১ হাজার ১২১ টি ভোটকক্ষে ভোট গ্রহন করা হয়। এর মধ্যে ‘হেলিকপ্টার কেন্দ্র ১৮ টি।

            বান্দরবান ৩০০ নং আসনে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে টানা সপ্তম বারের মতো বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন নৌকা প্রতীক আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বীর বাহাদুর উশৈসিং। তিনি পেয়েছেন ১,৭২,৬৭১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী এটিএম শহীদুল ইসলাম পেয়েছেন ১০,৩৬১ ভোট। বান্দরবান জেলায় ১৮২ টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহ্ মোজাহিদ উদ্দিন। বান্দরবান আসনে মোট ভোটার ২,৮৮,৩০ জন। এবার নির্বাচনে ভোট কাস্ট হয়েছে মোট ৬৪.৯ শতাংশ।

            খাগড়াছড়ি আসনে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে টানা তৃতীয় বারের মতো বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে হ্যাটট্রিক করলেন নৌকা প্রতীক আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। তিনি নৌকা প্রতীকে নিয়ে পেয়েছেন ২,২০, ৮১৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মিথিলা রোয়াজা পেয়েছেন ১০,৯৩৮ ভোট। সোনালী আঁশ প্রতীক নিয়ে তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী উশ্যেপ্রু মারমা ৯, ৫২৬ ভোট। খাগড়াছড়ি জেলায় ১৯৬ টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষনা করেন জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মো: সহিদুজ্জামান। খাগড়াছড়ি আসনে মোট ভোটার ছিল ৫ লাখ ১৫ হাজার ৪১৯ জন। এবারে প্রাপ্ত ভোট ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৯৩। যা মোট ভোটের শতকরা ৪৯.৯৮ শতাংশ। এরমধ্যে বাতিল হয়েছে ৭ হাজার ৮৫৭ ভোট।

            জাতীয় নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর। মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর। মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮ টা পর্যন্ত এবং ভোট গ্রহণ ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত।

খবরটি 380 বার পঠিত হয়েছে


বান্দরবানের চিম্বুকে পর্যটন স্থাপনা নির্মাণের পক্ষে ম্রো সম্প্রদায়ের মানববন্ধন: সংহতি প্রকাশ করে পা...
পার্বত্য শান্তিচুক্তি ২৩ বছর: বান্দরবানে এ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ
রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন: রাজনৈতিক অঙ্গনে পরিবর্তনের উত্তাপ
বান্দরবানে ইউএনও নাম ভাঙ্গিয়ে পাহাড় কাটায় জব্দ স্ক্যাবেটর: পাহাড় খেকো মোমিন ও হাসানের বিরুদ্ধে ম...
বান্দরবানে কর্মরত সাংবাদিকদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ: সাংবাদিক নাদিমকে হত্যার প্রতিবাদ ও দোষীদের...
বান্দরবানে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে মাছের পোনা অবমুক্ত: ১৮ টি প্রাতিষ্ঠানিক পুকুরে ২১০ কেজি রুই জা...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen