পযর্টন ডেস্ক: ঘুরতে যেতে মন চাচ্ছে! কিন্তু আবার অর্থের বিষয়টি মাথায় আসতে ফিকে হয়ে যাচ্ছে এ চিন্তা। তাহলে আপনার জন্য সুখবর আছে। ঘুরতে গিয়ে আপনাকে অর্থ নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। কারণ ঘুরার জন্য আপনাকে উল্টো অর্থ দেওয়া হবে। এমন অদ্ভুত সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ব এশিয়ার স্বায়ত্ত্বশাসিত দেশ তাইওয়ান। মূলত পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে এ উদ্যোগ নিয়েছে দেশটি। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, তাইওয়ান সিদ্ধান্ত নিয়েছে যেসব বিদেশি পর্যটক ঘুরতে আসবেন তাদের প্রত্যেককে ৫ হাজার তাইওয়ানি ডলার দেওয়া হবে। বাংলাদেশি অর্থে যা প্রায় ১৮ হাজার টাকার সমান। এছাড়া প্রায় ৯০ হাজার টুরিস্ট গ্রুপকে নগদ ২০ হাজার তাইওয়ানি ডলার দেওয়া হবে।       তাইওয়ানের প্রধানমন্ত্রী চেন চিয়েন-জেন জানিয়েছেন, তারা প্রত্যাশা করছেন, ২০২৩ সালে  তাইওয়ানে আসবেন ৬০ লাখ পর্যটক। এছাড়া তাদের লক্ষ্য ২০২৫ সালে ১ কোটি পর্যটককে নিয়ে আসা। এর অংশ হিসেবে এ অর্থ দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ নগদ অর্থ দেওয়া হবে ডিজিটাল মাধ্যমে। পর্যটকরা এ দিয়ে তাইওয়ানের ভেতর হোটেল ভাড়া দেওয়া থেকে শুরু করে সবই করতে পারবেন। তিনি জানিয়েছেন, তাদের লক্ষ্য হলো জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, হংকং, ম্যাকাওসহ ইউরোপ ও আমেরিকার পর্যটকদের আকৃষ্ট করা।

            এদিকে ২০২২ সালে তাইওয়ানে এসেছিলেন মাত্র ৯ লাখ পর্যটক। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি পর্যটক ছিল ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, জাপান এবং যুক্তরাষ্ট্রের। অথচ ২০১৯ সালে এ দ্বীপ রাষ্ট্রে এসেছিলেন ১ কোটি ১৮ লাখ পর্যটক। ২০১৮ সালের তুলনায় যা প্রায় ৭ শতাংশ বেশি ছিল। কিন্তু ২০২০ সালের শুরুতে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে তাইওয়ান নিজেদের সীমান্ত বন্ধ করে দেয়। ২০২২ সালে বেশিরভাগ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে প্রত্যাশা অনুযায়ী পর্যটক আসেননি। এ কারণে এমন উদ্যোগ নিয়েছে দেশটি। অবশ্য কবে থেকে এ সুবিধা চালু হবে এবং অর্থ পেতে কিভাবে আবেদন করতে সে ঘোষণা এখনো দেয়নি তাইওয়ানের সরকার।

সূত্র: সিএনএন

খবরটি 510 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen