প্রতিনিধি, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম): লোহাগাড়ায় দীর্ঘ প্রচেষ্টার পরেও পরিবার রক্ষা করতে না পেরে স্ত্রীর বিচার চাইলেন প্রবাসী স্বামী আবু তালেব। শনিবার (২২ জুন) বিকেলে এ ব্যাপারে আবু তালেবের মা মরিয়ম বেগম, বোন রোজিনা আক্তার এবংভাতিজা আবু সুফিয়ানের নেতৃত্বে এক সংবাদ সম্মেলনে ইশরাত জাহান এ্যানীর নানা অপকর্মের তথ্য তুলে ধরেন। এছাড়াও এ্যানী ইতোপূর্বে প্রবাসী স্বামীর পাঠানো বিপুল অংকের টাকাও আত্নসাত করেন বলে জানান।

            সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে আবু তালেবের মা মরিয়ম বেগম জানান, তাঁর পুত্রবুধু এ্যানীর নানা অপকর্ম কারনে এলাকায় একাধিকবার শালিষী বৈঠক হয়েছে এবং ভবিষ্যতে এ ধরণের কোন অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হবেনা বলেএ্যানী মুছলেকা দিলেও সে সংশোধন হয়নি। সংবাদ সম্মেলনে আবু তালেবের পরিবার স্থানীয় প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে পরকীয়ায় লিপ্ত এ্যানীর বিচার প্রার্থনা করেন।

            জানা যায়, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর ইউনিয়নের সর্দানী পাড়ার ওমান প্রবাসী জনৈক আবু তালেবের সাথে ছয় বছর পূর্বে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন চকরিয়া উপজেলার পূর্ব ভেউলার ইশরাত জাহান এ্যানীর। বিয়ের কিছু দিন দেশে অবস্থানের পর স্বামী আবু তালেবওমান চলে যান। পরবর্তীতে স্ত্রী এ্যানী পরকীয়ার জড়িত হয়ে পড়ে এলাকার কিছু বখাটের সাথে। এ ব্যাপারে স্বামী আবু তালেব ও পরিবারের অন্যান্য সদস্য নিষেধ করলে তাঁকে এ অনৈতিক কর্মকান্ড থেকে বিরত করতে পারেনি। সম্প্রতি রনি নামে স্থানীয় এক বখাটের সাথে এ্যানী পালিয়ে গিয়ে আবু তালেবকে নানা হুমকি প্রদান করেন বলে জানান।

            সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম, মো. হারুন ও আব্দুল কাদের প্রমুখ।

খবরটি 329 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen