স্বাস্থ্য ডেস্ক: ভারতের ওষুধে ভেজাল দেওয়ার অভিযোগে ১৮ কোম্পানির লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। শোকজ নোটিশ দেওয়া হয়েছে আরও ২৬ টি কোম্পানিকে। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

            ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের অধীন নিয়ন্ত্রক সংস্থা ড্রাগস কনট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া’র (ডিসিজিআই) কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দেশের ২০ টি রাজ্যের ৭৬ টি কোম্পানিতে ঝটিকা অভিযান চালানোর পর এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

            ওষুধ প্রস্তুত ও রপ্তানির ক্ষেত্রে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর মধ্যে ভারত অন্যতম। নিজেদের অভ্যন্তরীণ চাহিদা মিটিয়ে বিভিন্ন দেশে বিপুল পরিমাণ ওষুধ রপ্তানি করে দেশটি। সম্প্রতি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভারতীয় কোম্পানিগুলোর ওষুধে ভেজাল থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বছর সেপ্টেম্বরের দিকে ভারতীয় কোম্পানি মেইডেন ফার্মাসিটিক্যালসের কফ সিরাপ সেবন করে কিডনি জটিলতায় মৃত্যু হয়েছে ৭০ জন শিশুর। তার কয়েক মাস পর ম্যারিয়ন বায়োটেক নামের একটি কোম্পানির কফ সিরাপ সেবনের পর উজবেকিস্তানে মারা গেছে ১৮ জন শিশু। অতি সম্প্রতি ভারতের গুজরাটভিত্তিক ওষুধ কোম্পানি জাইডাস লাইফসাইন্সের বাতের ওষুধে ভেজাল শনাক্ত হওয়া যুক্তরাষ্ট্রের থেকে ফেরত এসেছে ৫৫ হাজার বোতল ওষুধ। এছাড়া চেন্নাইভিত্তিক ওষুধ কোম্পানির আইড্রপ ব্যাবহারের পর যুক্তরাষ্ট্রে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন অন্তত ৬০ জন মানুষ। ওই আইড্রপটি ছিল চোখ ওঠা রোগের ওষুধ।

খবরটি 539 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen