তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক: জ্যোতির্বিজ্ঞান ও মহাকাশ গবেষণায় ২০২২ সাল ছিল ব্যাপকভাবে সফল। সদ্য বিদায়ী এই বছরটিতে ২৩৫টিরও বেশি নতুন গ্রহ আবিষ্কার করেছেন মহাকাশবিজ্ঞানীরা। রোববার এক টুইটবার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল অ্যারোনেটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (নাসা)। টুইটবার্তায় বলা হয়েছে, ‘(আবিষ্কৃত) ৫ হাজারের কিছু কম সংখ্যক গ্রহ নিয়ে ২০২২ সাল শুরু করেছিলাম আমরা। বছর শেষে এই সংখ্যা পৌঁছেছে ৫ হাজার ২৩৫টিতে। আবিষ্কৃত এসব গ্রহের ৪ শতাংশ পাথর বা শিলা দিয়ে গঠিত, আমাদের পৃথিবী এবং প্রতিবেশী মঙ্গলের মতো। বাকিগুলো গ্যাসীয় গোলক।

            এ সংক্রান্ত একটি বিবৃতিও প্রকাশ করেছে মার্কিন এ মহাকাশ গবেষণা সংস্থার সদরদপ্তর। সেখানে বলা হয়েছে, ২০২২ সালে সর্বশেষ নতুন যে গ্রহটি আবিষ্কৃত হয়েছে, সেটির নাম এইচডি ১০৯৮৩৩ বি। আমাদের সৌরজগতের গ্রহ নেপচুনের সমান আকৃতির এই গ্যাসীয় গ্রহটি যে নক্ষত্রকে কেন্দ্র করে ঘুরছে, সেটির আকার-আয়তন ও বয়স আমাদের সূর্যের মতোই।

            নতুন বছরে আমাদের প্রত্যাশা?—আরো আরো নতুন গ্রহ চাই। চলতি বছর যেসব শিলাগঠিত গ্রহের সন্ধান পাওয়া গেছে, সেগুলোর অন্তত দু’টিতে আমাদের গ্রহ পৃথিবীর মতো পানি থাকার সম্ভাবনা আছে বলে রোববারের বিবৃতিতে উল্লেখ করে নাসা বলেছে, ‘এ দু’টি গ্রহে পানি আছে কিনা তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি; তবে আমাদের বিজ্ঞানীরা গ্রহ দু’টির ভর ও উপাদান বিশ্লেষণ করে জানতে পেরেছেন; এগুলোতে পাথুরে শিলার পাশাপাশি এমন পদার্থের উপস্থিতি বিপুল পরিমাণে আছে, যেটির ওজন শিলার চেয়ে কম, কিন্তু হাইড্রোজেন বা হিলিয়ামের চাইতে বেশি।

খবরটি 633 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen