জবভ:                             উধঃব: ১৭ জুলাই ২০২১

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

রাঙামাটিতে পিসিপি’র ২য় বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত: পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ

 

বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) -এর ২য় কেন্দ্রীয় বর্ধিতসভা রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৪-১৫ জুলাই ২০২১ এই বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। দুই দিনব্যাপী চলা বর্ধিত সভায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

পিসিপির কেন্দ্রীয় সভাপতি সুনয়ন চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক সুনীল ত্রিপুরা সংবাদ মাধ্যমে প্রদক্ত এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানানো হয়।

নেতৃদ্বয় বলেন, করোনা ভাইরাসের ফলে সারাদেশে যে পরিস্থিতি এসে দাঁড়িয়েছে তা মোকাবিলা করতে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। শ্রমিক-কৃষক মেহনতি মানুষের জীবন-জীবিকা নিশ্চিত না করে সরকার সারাদেশে কখনো লকডাউন, কখনো শাটডাউন আর কখনো সবকিছু খুলে দিয়ে এক জোগাখিচুড়ি পরিস্থিতি তৈরি করেছে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের করোনা টিকা ব্যবস্থা না করে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে শিক্ষা ব্যবস্থা বিপর্যয়ের মূখে ঠেলে দিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতেও পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি জনগণের ওপর সরকার ও রাষ্ট্রীয় বাহিনী নিপীড়ন-নির্যাতন বাড়িয়ে তুলেছে।

নেতৃদ্বয় পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতি তুলে ধরে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, কোভিড-১৯ অতিমারির সময়েও পার্বত্য চট্টগ্রামে রাষ্ট্রীয় নিপীড়ন থেমে নেই। পার্বত্য চট্টগ্রামে রাষ্ট্রীয় বাহিনী ক্যাম্প স্থাপন, রাস্তা ও পর্যটনের নামে পাহাড়িদের ভূমি বেদখলের পায়তারা চলছে। গুইমারায় সিন্দুকছড়ির পুক্ষীমুড়ো, মাটিরাঙ্গায় তাইন্দং এলাকায় পাহাড়িদের জায়গা, বান্দরবানের ¤্রােদের চিম্বুক (নাইতং) পাহাড় বেদখলের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সেনাবাহিনী কর্তৃক সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দিয়ে রাঙামাটির কুদুকছড়ি, বাঘাইছড়িতে বৌদ্ধ বিহারে জায়গা দখল করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে। শুধু ভূমি বেদখল নয় পার্বত্য চট্টগ্রামে রাজনৈতিক কর্মীদের ওপর নিপীড়ন অব্যাহত রয়েছে। সিন্দুকছড়িতে ভূমি বেদখলের প্রতিবাদে সাজেকে জনগণের সমাবেশে হামলা চালিয়ে পিসিপি সাজেক থানা শাখার সভাপতি রূপায়ন চাকমাকে অন্যায়ভাবে আটক করেছে। ‘পঞ্চদশ সংশোধনী’ বাতিলের দাবিতে মাটিরাঙ্গা বাইল্যাছড়িতে পোষ্টার লাগানোর সময় ইউপিডিএফের সদস্যসহ চারজন ও রাতের আঁধাারে গুইমারা শনখোলা পাড়ায় এক ইউপিডিএফ সদস্যসহ ৪ জনকে আটক করেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে এমন পরিস্থিতিতে পাহাড়ি জনগণ আতঙ্কিত এবং করোনা মহামারিতে সরকার ও রাষ্ট্রীয় বাহিনীর এসব কর্মকান্ডে আমরা উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

নেতৃদ্বয় অবিলম্বে রাষ্ট্রীয় বাহিনী কর্তৃক ক্যাম্প সম্প্রসারণসহ পর্যটন-রাস্তাঘাটের নামে ভূমি বেদখল ও রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের অন্যায় ধরপাকড় বন্ধসহ সর্বোপরি পার্বত্য চট্টগ্রামে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

 

বার্তা প্রেরক

শুভাশীষ চাকমা

দপ্তর সম্পাদক

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)

কেন্দ্রীয় কমিটি।

খবরটি 104 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen