সূত্র :                            তারিখ:  ১৯ ডিসেম্বর ২০২০

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম নেতা রূপন মারমাকে গ্রফেতারের নন্দিা, অবিলম্বে মুক্তির দাবি

 

গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম (ডিওয়াইএফ)-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি অংগ্য মারমা আজ শনিবার (১৯ ডিসেম্বর ২০২০) সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে সংগঠনরে কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রচার সম্পাদক রূপন মারমাকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং অবিলম্বে তাকে নি:র্শত মুক্তি দেয়ার দাবি করেছেন।

বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করে বলেন, গতকাল শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর ২০২০) সন্ধ্যার দিকে রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার বেতবুনিয়া এলাকায় ইউপিডিএফের আসন্ন ২২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দেওয়ালে চিকা মারতে গিয়ে সেনাবাহিনী রূপন মারমাকে গ্রেফতার করে।

এরপর সেনাবাহিনীর সদস্যরা রূপন মারমাকে নিয়ে বেতবুনিয়ার চৌধুরী পাড়ায় দিবাগত রাত ২টায় কংলাউ মারমা, পতিা- ক্যাজাইরুই মারমা নামে এক ইউপিডিএফ সদস্যের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে। সেনারা কংলাউ মারমার সহর্ধমীনি পাইসিথৃই মারমা ও তার ভাগিনীর ছবি তুলে এবং যাবার সময় তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয়।

বিবৃতিতে অংগ্য মারমা বলেন, যে কোন দলের সভা-সমাবেশ, ব্যানার-ফেষ্টুন টাঙানো, দেওয়াল লিখন একটি গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু র্পাবত্য চট্টগ্রামে এ অধিকারকে ভুলুণ্ঠিত করে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার-নির্যাতন করা হচ্ছে।

বিবৃতিতে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, গ্রেফতারের পর রূপন মারমাকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। ফলে তার জীবন নিয়ে শঙ্কা দখো দিয়েছে।

তিনি অবিলম্বে রূপন মারমার নি:র্শতে মুক্তির দাবি জানিয়েছেন।

র্বাতা প্রেরক

 

বরুণ চাকমা

সহ-সাধারণ সম্পাদক

গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম

কেন্দ্রীয় কমিটি।

খবরটি 204 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen