স্বাস্থ্য ডেস্ক: সরকারি হাসপাতালগুলোতে নির্দিষ্ট পরিমাণ ‘ফি’ দিয়ে বাৎসরিক চেকআপ সিস্টেম চালু হতে যাচ্ছে। দেশের প্রতিটি মানুষ এই সেবা নিতে পারবেন। নতুন বছরের (২০২৩ সাল) শুরু থেকে পুরোদমে সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে এই কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। শনিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে শিশুদের স্পেশাল কেয়ার ইউনিট স্ক্যানু উদ্বোধন শেষে বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামের সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি এ কথা বলেন।

            স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, আগামীতে আমরা নতুন একটি প্রকল্প শুরু করতে যাচ্ছি। দেশের সব হাসপাতালে জনগণকে বাৎসরিক চেকআপ করাব। এতে করে অনেক লোকের আর্লি ডায়াগনোসিস হবে। মানুষ অসুস্থ হলে যদি রোগ সম্পর্কে সঙ্গে সঙ্গেই জানতে পারে, তাহলে দ্রুত চিকিৎসার আওতায় আসতে পারবে। এক্ষেত্রে রোগী পুরোপুরি সুস্থ হওয়ারও সুযোগ থাকে। এমনকি এটি শুরু করতে পারলে রোগীদের বিদেশমুখীতাও কমে আসবে। তিনি বলেন, বাৎসরিক চেকআপ সবার জন্যই উন্মুক্ত থাকবে। তবে এই সেবার বিনিময়ে একটা চার্জ আমরা ধরব। এটি প্যাকেজ সিস্টেম হবে। আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুরু করে দেব। কারণ ইউনিভার্সেল হেলথ কাভারেজে আসতে হলে এটা আমাদের লাগবে। আমরা হয়তো আগামী এক/দুই মাসের মধ্যেই কাজ শুরু করব। বাস্তবায়ন পর্যায়ে যেতে হয়তো তিন মাস তো লাগবে। তবে আগামী বছরের শুরুতে আমরা পুরোপুরিভাবে চালু করতে পারব।

খবরটি 119 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen