অর্থনীতি ডেস্ক: দেশের রাজধানী ঢকায় ঘাটারচর থেকে ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার পর্যন্ত ও ঘাটারচর থেকে কদমতলী রুটে মোট ৫০টি করে ১০০টি নতুন করে নগর বাস সেবা চালু করেছে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর বছিলা থেকে এ বাস সেবা উদ্বোধন করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এসময় সেখানে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। নতুন রুট দুটির মধ্যে রয়েছে ২২ নম্বর রুট যা ঘাটারচর থেকে ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার পর্যন্ত এবং ২৬ নম্বর রুট যা ঘাটারচর থেকে পোস্তগোলা কদমতলী পর্যন্ত।

            ২২ নম্বর রুট: ঘাটারচর-ওয়াশপুর-বসিলা-মোহাম্মদপুর টাউন হল-আসাদ গেট হয়ে ফার্মগেট কাওরানবাজার-শাহবাগ-কাকরাইল-ফকিরাপুল-মতিঝিল টিকাটুলি-সায়েদাবাদ হয়ে যাত্রাবাড়ী-কোনাপাড়া- ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার।

            ২৬ নম্বর রুট: ঘাটারচর-ওয়াশপুর-বসিলা-মোহাম্মদপুর-টাউন হল-আসাদ গেট-কলাবাগান-সায়েন্স ল্যাব-নিউ মার্কেট হয়ে আজিমপুর-পলাশী-চাঁনখার পুল-ফ্লাইওভার হয়ে-পোস্তগোলা কদমতলী।

            নগর পরিবহন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাদি: এর আগে বাস রুট রেশনালাইজেশনের আওতায় গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর ২১ নং রুটের ঘাটারচর-মোহাম্মদপুর-জিগাতলা-প্রেসক্লাব-মতিঝিল-যাত্রাবাড়ী-কাঁচপুর পর্যন্ত ঢাকা নগর পরিবহন বাস সেবা পরিচালনা শুরু করা হয়। সে সময় প্রাথমিকভাবে বিআরটিসির ৩০টি দ্বিতল বাস, ট্রান্স সিলভা পরিবহনের ২০টি বাসসহ মোট ৫০টি বাস চলাচল করে। বাস রুট রেশনালাইজেশন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রাথমিকভাবে ৯টি ক্লাস্টার (৯টি ভিন্ন ভিন্ন রঙের), ২২টি কোম্পানী ও ৪২টি রুটের প্রস্তাবনা দেয়া হয়েছে। এর মাঝে সবুজ ক্লাস্টারে বর্তমানে চলমান মোট ৫৪টি রুটকে সমন্বয় করে ৮টি রুটে পরিণত করা হয়েছে যাদের রুট নং ২১ হতে ২৮। এর মাঝে ২১ নং রুটটি বর্তমানে পাইলট রুট হিসেবে চলছে। এর অংশ হিসেবে ২২ নং রুটে অভি মটরর্সের ৫০টি নতুন বাস এবং ২৬ নং রুটে ২০১৯ সালের পর রেজিস্ট্রেশনকৃত বিআরটিসি’র দ্বিতল ৫০টি বাস সেবা চালুর উদ্বোধন করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে প্রায় ৭০টি যাত্রী ছাউনি (বাস স্টপেজ) তৈরি করা হয়েছে।

খবরটি 145 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen