তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক:  দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আরও ৫ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হবে। এ ছাড়া মানবসম্পদ উন্নয়নের লক্ষ্যে দেশের ৬৪ জেলাতে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের আদলে লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের দ্বিতীয় ধাপের রূপরেখা তৈরি করছে তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ। প্রকল্প বাস্তবায়নে ডিসেম্বরের মধ্যে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ চাওয়া হবে একইসঙ্গে সংসদ সদস্যদের তালিকার ভিত্তিতে। সম্প্রতি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন পর্যালোচনা সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় আইসিটি বিভাগের চলতি অর্থবছরে গৃহীত প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন কর্মপরিকল্পনা নিয়ে বিশেষ করে এটুআই প্রোগ্রাম, জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অবকাঠামো উন্নয়ন-ইনফো সরকার-৩ প্রকল্প, মোবাইল গেম অ্যান্ড অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাই-টেক পার্ক সিলেট ও রাজশাহী প্রকল্প, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট, উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্পসহ অন্য সব প্রকল্পের আর্থিক ও বাস্তব অগ্রগতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

            সংস্থা প্রধান ও প্রকল্প পরিচালকরা নিজ নিজ প্রকল্পের বাস্তবায়ন পরিকল্পনা ও সর্বশেষ অগ্রগতি সভায় তুলে ধরেন। প্রতিমন্ত্রী কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী গুণগতমান বজায় রেখে প্রকল্পের কাজ যথাসময়ে শেষ করতে প্রকল্প পরিচালকদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ প্রদান করেন।

সভায় সংসদ সদস্যদের তালিকার ভিত্তিতে দেশে আরও ৫ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপনের বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়। এলাকার জনসংখ্যা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পূর্ব যোগ্যতা বিবেচনায় নিয়ে এ ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা দেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

            এ ছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ফ্রিল্যান্সারদের আর্থিক ও সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিত করতে তাদের পরিচয় পত্র প্রদানের কার্যক্রম আগামী এক মাসের মধ্যে বাস্তবায়নের জন্য কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটি (সিসিএ), বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) ও মোবাইল গেমস অ্যান্ড অ্যাপস প্রকল্প কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করার জন্য প্রকল্প পরিচালক, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে জোর তাগিদ দেন। প্রকল্প পরিচালকরা প্রকল্পগুলোর কাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

            অনলাইন মাধ্যমে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সংযুক্ত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে আরও যুক্ত ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেব ছাড়াও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতরসহ বিভাগের অধীন বিভিন্ন সংস্থা প্রধান এবং বিভিন্ন প্রকল্প পরিচালকরা।

খবরটি 152 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen