স্টাফ রিপোর্টার, বান্দরবান: বান্দরবানের জামছড়ি ইউনিয়নের আলোচিত সিক্স মার্ডার মামলার প্রধান আসামিকে আটক করা হয়। আপাই মারমা (৩৮) জামছড়ি পাড়ার বাসিন্দা সাদেচিং মারমার ছেলে। শনিবার (২৪ জুলাই) সকালে সদর উপজেলার জামছড়ি মুখপাড়া এলাকায় নিজ বাসা থেকে সেনাবাহিনী তাকে আটক করেছে। আপাই মারমাসহ এ হত্যা মামলার ৫ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করে নিরাপত্তা বাহিনী।

            জানা যায়, আলোচিত সিক্স মার্ডার হত্যা মামলার প্রধান আসামি আপাই মারমা জামছড়ি মুখ পাড়ায় নিজ বাড়িতে অবস্থান করছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে বান্দরবান রিজিয়নের অধীনস্ত বান্দরবান সেনা জোন এর একটি চৌকস দল জামছড়ি মুখ পাড়ায় নিজ বাড়ী থেকে আপাই মারমাকে আটক করে। পরে দুপুরে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

            জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল জানান, আলোচিত ৬ জন হত্যা মামলার প্রধান আসামি আপাই মারমাকে বাঘমারা সেনাবাহিনী আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। আপাই মারমাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে তোলা হবে। এ হত্যা মামলার ৪ জন আসামিকে আগে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

            গত ২০২০ সালের ৭জুলাই সকালে বান্দরবান সদর উপজেলার জামছড়ি ইউনিয়নের বাঘমারা বাজার পাড়ায় জনসংহতি সমিতি (জেএসএস সংস্কার) উপর সন্ত্রাসীরা হামলা করে। এ সময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস সংস্কার) এর বান্দরবান জেলা শাখার সভাপতি রতন তঞ্চঙ্গ্যা, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি প্রজিত চাকমা, সদস্য ডেবিট বাবু, মিলন চাকমা, জয় ত্রিপুরা ও দিপেন ত্রিপুরাসহ ৬ জন নিহত হয়। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়ে বিদ্যুৎ ত্রিপুরা, নিরু চাকমা ও মেমানু মারমা। ঘটনায় পর ২০২০ সালে ৮জুলাই তারিখে জেএসএস (সংস্কার) জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক উবামং মারমা বাদী হয়ে ১০ জনের নামে এবং ১০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে বান্দরবান সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে।

খবরটি 100 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen