বিশেষ খবর ডেস্ক: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কোলা বাজারের ২২/২৩ বছরের এক মানসিক প্রতিবন্ধী মহিলার শারীরিক অসুস্থতা এবং তার গর্ভের সন্তানের কথা চিন্তা করে মানবিক কারণে নিজের বাড়ি নিয়ে যান মায়াধরপুর গ্রামের প্রান্তিক চাষী আমজাদ আলী। আমজাদ নিজে গরীব মানুষ। মাঠে তার কোন চাষযোগ্য জমি নেই। সারাবছর অন্যের ক্ষেতে কাজ করে সংসার চালান। এক মেয়ে আর এক ছেলের মধ্যে মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন। ছেলে রাজমিস্ত্রির কাজ করে। কিন্তু সে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়ে ৬ মাস ধরে শয্যাশায়ী। ফলে এখন শুধু আমজাদের একার রোজগারে সংসার চালাতে হচ্ছে। নিজের অভাবের মধ্যেও তিনি অনন্য মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংবাদপত্রের মাধ্যমে ঘটনাটি জানতে পারেন। বঙ্গবন্ধু কন্যার নির্দেশে গর্ভবতী প্রতিবন্ধী মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২ অক্টোবর দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে এ নারী একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। মা ও মেয়ে উভয়ে এখন সুস্থ আছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ সোমবার সকালে আমজাদ আলীকে একটি মটরচালিত রিকশা ভ্যান কিনে দিয়েছেন। প্রতিবন্ধী নারীটিকে ‘প্রতিবন্ধী কার্ড’ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রতিবন্ধী ঐ নারী ও তার সদ্যপ্রসূত শিশু কন্যার দেখভালের জন্য আমজাদকে নগদ ৫৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে।

খবরটি 98 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen