জবভ:                                                  উধঃব: ১৫ জুলাই ২০২০

 

প্রসে বিজ্ঞপ্তি

 

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জলো শাখার ১৭তম কাউন্সিল সম্পন্ন

সমর চাকমা সভাপতি, নিকেল চাকমা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

 

বৃহত্তর র্পাবত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পসিপি)-এর খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ১৭তম কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে। এতে সমর চাকমা সভাপতি ও নিকেল চাকমা সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। আজ বুধবার (১৫ জুলাই ২০২০) সকাল ১০টায় দলীয় সংগীত বাজিয়ে কাউন্সিল উদ্বোধন করা হয়। কাউন্সিলের অধবিশেন শুরুতে গণতান্ত্রকি লড়াইয়ে যারা জীবন দিয়েছেন সেসব শহীদের সম্মান জানিয়ে ১ মনিটি নিরবতা পালন করা হয়।

“মানুষের দুঃসহ যন্ত্রণায় ছাত্ররা কখনো নীরব র্দশক হয়ে থাকতে পারে না, এসো র্পাবত্য চট্টগ্রামে অসহায় বিপন্ন মানুষকে দানবীয় কবল থেকে মুক্ত করতে জনসেবার মহৎ আর্দশে অনুপ্রাণিত হয়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলি এই আহ্বানে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুমন্ত চাকমার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সমর চাকমার সঞ্চালনায় কাউন্সিল অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক অংগ্য মারমা, পিসিপির কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি রিপন জ্যোতি চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক নীতি শোভা চাকমা, চট্টগ্রাম বশ্বিবদ্যিালয় শাখার তথ্য ও প্রচার সম্পাদক রোনাল চাকমা এবং চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক অমিত চাকমা প্রমুখ।

ইউপিডিএফ জেলা সংগঠক অংগ্য মারমা বলনে, যে কোন আন্দোলন, লড়াই-সংগ্রাম এগিয়ে নেওয়ার জন্য ছাত্র সমাজকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হয়। সুনির্দিষ্ট ও সঠিক আর্দশকে বুকে ধারণ করে কঠোর, কঠিন পরিস্থিতিতে ছাত্র সমাজকে আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে। একাডেমিক শক্ষিার পাশাপাশি জাতীয় র্দুদিনেও ছাত্র সমাজকে সামনের কাতারে থাকতে হবে। একাধিক সংগঠন জাতির জন্য কাজ করছে দাবি করলেও আদতে তারা জাতির অস্তিত্ব রক্ষায় কোন ভূমিকা পালন করছে কিনা সেটা ছাত্র সমাজকে নির্ণয় করতে হবে বলে তিনি মত প্রকাশ করনে।

রিপন জ্যোতি চাকমা বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে পানছড়ি, রামগড়, গুইমারা, দীঘিনালা ও বান্দরবানের বিভিন্ন স্থানে সেটেলার, সেনা-বিজিবিসহ বিভিন্ন কোম্পানীর নামে ভূমি বেদখল করার পায়ঁতারা করা হচ্ছে। অবিলম্বে ভূমি বেদখল বন্ধ করতে হবে। পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ প্রতিষ্ঠার পর থেকে নানা বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে আপোষহীনভাবে লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করনে।

অমিত চাকমা তার বক্তব্যে বলেন, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ পাহাড় এবং সমতলে নিপীড়িত-নির্যাতিত জনগণের জন্য লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। র্পূণস্বায়ত্তশাসনের লড়াইকে এগিয়ে নিতে ছাত্র সমাজকে সোচ্চার হতে হবে।

নীতি শোভা চাকমা বলেন, র্পাবত্য চট্টগ্রামে প্রতিনিয়ত নারী নির্যাতন, র্ধষণ-খুন-গুম বেড়ে চলেছে। যার কোনটির সুষ্ঠু বিচার হচ্ছে না। ফলে অপরাধীরা পার পেয়ে যাচ্ছে। এগুলো প্রতিরোধ করার জন্য নারী-ছাত্র-যুব সমাজকে একে অপরের পরিপুরক হিসেবে কাজ করতে হবে।

রোনাল চাকমা বলেন, র্পাবত্য চট্টগ্রামে দিন দিন সামরিক শাসনের মাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বান্দরবানে সেনাবাহিনী র্কতৃক নিরীহ জুম চাষী শান্তিলতা তঞ্চঙ্গ্যাকে হত্যা ও শিশুপুত্র র্অজুন তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে আহত করার ঘটনা এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। ছাত্র সমাজকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে।

সভাপতির বক্তব্য সুমন্ত চাকমা বলেন, র্পাবত্য চট্টগ্রামের ছাত্র সমাজকে দমিয়ে রাখার জন্য শাসকগোষ্ঠীর নীল নক্সাকে দৃঢ়তার সাথে প্রতিহত করতে হবে।

শেষে কাউন্সিলে উপস্থিত সকলের র্সবসম্মতিক্রমে সমর চাকমাকে সভাপতি নিকেল চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও নরেশ ত্রিপুরাকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচতি করে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট নতুন জেলা কমিটি গঠন করা হয়। ইউপিডিএফ খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক অংগ্য মারমা নতুন কমিটির সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান।

 

র্বাতা প্ররেক

 

টনক চাকমা

দপ্তর সম্পাদক

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ

খাগড়াছড়ি জলা কমিটি।

খবরটি 223 বার পঠিত হয়েছে


আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Follow us on Facebookschliessen
oeffnen